fbpx

বাংলাদেশের প্রথম ভিডিও নিউজ পোর্টাল

শনিবার, ৬ই জুন, ২০২০; ২৩শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭; ১২ই শাওয়াল, ১৪৪১
হোম প্রবাস আমিরাতে ‘জয় বাংলা উৎসব’ অনুষ্ঠিত
আমিরাতে ‘জয় বাংলা উৎসব’ অনুষ্ঠিত

আমিরাতে ‘জয় বাংলা উৎসব’ অনুষ্ঠিত

0

‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। বাংলাদেশের নিজস্ব সংস্কৃতিকে পরিচয় করিয়ে দিতে হবে বিশ্বব্যাপী। দেশে ও বিদেশে বাংলা শব্দের শুদ্ধ উচ্চারণ এর প্রচলন কার্যকর করতে হবে। জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর শততম জন্ম উৎসব দেশে ও বিদেশে উদযাপন করবে ইউথ ফোরাম।’

উপরের কথাগুলো গতকাল (শুক্রবার) আমিরাতে ‘জয় বাংলা উৎসব’ এ আগত অতিথি ও আয়োজকরা বলেন।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে গঠিত ‘ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম’ এর বৈদেশিক শাখা ‘ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম ইউএই’ ও শারজাহ আমেরিকান ইউনিভার্সিটি এর বাংলাদেশ কালচারাল ক্লাবের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘জয় বাংলা উৎসব ‘।
আমেরিকান ইউনিভার্সিটি অব শারজাহ এর হল রুমে জমকালো এই আয়োজনের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের বাঙালিয়ানা প্রদর্শিত হলো। ব্যতিক্রমধর্মী এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশি প্রবাসী ও আগত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বাংলাদেশের ইতিহাস ঐতিহ্য বাংলা ও ইংরেজিতে তুলে ধরা হয়। বিভিন্ন প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমেও উপস্থাপন করা হয় লাল সবুজের পতাকাবাহী বাংলাদেশকে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্টদূত ড. মুহাম্মদ ইমরান। ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম ইউএই’র সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট কাজী গুলশান আরা, মামুন রেজা, ইফতেখার হোসেন পাভেল, তুরসা ও আরিক এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুবাই কনস্যুলেটর কনসাল জেনারেল মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন খান, আমেরিকান ইউনিভার্সিটির চেন্সলর প্রফেসর কেভিন। উপস্থিত ছিলেন, ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম এর সভানেত্রী মুনা চৌধুরী, সহ সভাপতি কণ্ঠশিল্পী এস আই টুটুল, কমল চৌধুরী।

জয় বাংলা উৎসবে দেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী এস আই টুটুলের গান ছাড়াও ছিল দেশ থেকে আগত শিল্পীদের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা। এছাড়া ইয়াসমিন মেরুনা, জসিম উদ্দীন পলাশ, জাবেদ আহমদ মাসুম, শিমুল, অনন্দিতা খান, সোনিয়া, সহ বেশ কিছু প্রবাসী শিল্পী গান পরিবেশন করেন। নাচ পরিবেশন করেন ফারাহ শামস, পুস্পিতা, মৌমিতা, আরিয়ানা, প্রিয়তি ও শেরেন। কবিতা আবৃতি করেন শেখ ফরিদ ও কাজী গুলশান আরা।

উপস্থিত দর্শকদের জন্য বিশেষ আকর্ষণ ছিল অস্থায়ী শহিদ মিনার, স্মৃতিসৌধ, রায়ের বাজারের বধ্যভূমি। আলোকচিত্র প্রদর্শনীতে জাতীয় চার নেতা, সাত বীরশ্রেষ্ঠ, জাতীয় জবি কাজী নজরুল ইসলাম, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ, কবি জীবনানন্দ দাস এর ছবি স্থান পায়।

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry

LEAVE YOUR COMMENT

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।