fbpx

বাংলাদেশের প্রথম ভিডিও নিউজ পোর্টাল

শুক্রবার, ৫ই জুন, ২০২০; ২২শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭; ১২ই শাওয়াল, ১৪৪১
হোম অনুসন্ধান অপরাধবার্তা মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে আবারও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ
মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে আবারও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে আবারও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ

0

রাখাইন রাজ্যে নতুন করে ভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর অধিবাসীদের বিরুদ্ধে ‘যুদ্ধাপরাধ সংঘটন’ করছে বলে আবারও অভিযোগ উঠেছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে।

মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল গতকাল বুধবার নতুন এক প্রতিবেদনে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে, ভিন্ন জাতির বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী গেরিলা বাহিনীর সদস্যরা সেনাবাহিনীর হাতে ঢালাওভাবে গ্রেপ্তার হওয়ার পাশাপাশি বিচার বহির্ভূত হত্যা এবং নির্যাতনের শিকার হয়েছে।

কিন্তু মিয়ানমারের সেনাবাহিনী তাদের বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

এর আগে ২০১৭ সালে রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে নির্মম নির্যাতন চালায়। সে জন্য মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছিল মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে।

এ বছর ঐ এলাকায় আবার নতুন করে অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী।

জানা যায়, আরাকান আর্মি বিদ্রোহীদের ‘নিশ্চিহ্ন’ করার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশনা আসার পর ঐ অভিযান শুরু করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী।

মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চলের এ রাজ্যটিতে বেশ কয়েকটি ভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মানুষ বসবাস করে, যাদের মধ্যে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী রাখাইনরা সংখ্যাগরিষ্ঠ।

সেনাবাহিনীর ঢালাওভাবে চালানো হামলায় বেসামরিক নাগরিকরাও নিহত হয়েছে বলে বুধবার প্রকাশ হওয়া ঐ প্রতিবেদনে বলা হয়।

পূর্ব এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় অ্যামনেস্টির আঞ্চলিক পরিচালক নিকোলাস বেকেলিন এক বিবৃতিতে বলেন, “রোহিঙ্গাদের সাথে হওয়া সহিংসতায় পুরো পৃথিবীর মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করলেও, ঐ ঘটনার দুই বছর না পেরোতেই নতুন করে ভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর ওপর রাখাইন রাজ্যে আবারো ভয়াবহ অত্যাচার চালাচ্ছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী।”

হামলার শিকার হওয়া এলাকার মানুষের সাথে কথা বলে এবং নানারকম ছবি, ভিডিও এবং স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া ছবি যাচাই করে এই প্রতিবেদনটি তৈরি করে অ্যামনেস্টি।

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry

LEAVE YOUR COMMENT

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।